শম্ভু বাবুর ছেলেকে বাঁচাতে আমার মেয়েকে বলি দেয়া হচ্ছে

বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন মামলার প্রধান সাক্ষী ও নিহত রিফাতের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি।

এদিকে পাঁচদিনের রিমান্ডের দুইদিন শেষে মিন্নিকে শুক্রবার বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে পুলিশ। জবানবন্দি গ্রহণের পরে আদালত মিন্নিকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

এদিকে মিন্নিকে যখন আদালত থেকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিলো তখন তার বাবা মোজ্জাম্মেল হোসেন সেখানে ছিলেন। তিনি চিৎকার করে বলছিলেন, তার মেয়ের কাছ থেকে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি নেওয়া হয়েছে।

এ সময় মেয়েটি অসুস্থ দাবি করে এই বাবা আরো জানান, আগের দিন একজন পুলিশ সদস্য তাদের বাসায় গিয়ে মিন্নির ওষুধের প্রেসক্রিপশন নিয়ে আসেন। মেয়ে আমার জীবন বাজি রেখে তার স্বামীকে রক্ষা করতে গেছে। এটাই তার অপরাধ? সব কিছুর জন্য তিনি স্থানীয় সাংসদ ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভুকে দায়ী করেন।

এ ব্যাপারে মোজাম্মেল বলেন, ‘এসবই শম্ভুবাবুর খেলা। তার ছেলে সুনাম দেবনাথকে সেভ করার জন্য আমাদের বলি দেওয়া হচ্ছে।’

এ সময় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মিন্নিকে যখন আদালত থেকে বের করা হচ্ছিলেন, তখন তাকে পুলিশের দুজন নারী সদস্য ধরে ছিলেন। পিকআপ ভ্যানে তোলার সময় মিন্নি কিছু একটা বলার জন্য উদ্যত হয়েছিলেন। কিন্তু পাশে থাকা নারী পুলিশ সদস্য এ সময় মিন্নির মুখ চেপে ধরেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Releated

অস্ত্রের মুখে ‘কুমারিত্ব’ হারিয়ে আদালতের দ্বারস্থ দুই মুসলিম তরুণী

নাইজেরিয়ার লাগোস স্টেট ইউনিভার্সিটির (এলএএসইউ) কয়েকজন ছাত্রের বিরুদ্ধে একই প্রতিষ্ঠানের দুজন মুসলিম নারী শিক্ষার্থীকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গত সোমবার আদালতে নিজেদের জবানবন্দিতে ভুক্তভোগীরা জানিয়েছেন, ধর্ষণের ফলে তারা কুমারিত্ব হারিয়েছেন। এর বিচার চান তারা। ডেইলি পোস্টের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হিজাব পরিহিত ওই দুই নারী শিক্ষার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররাই অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ধর্ষণ করেছেন। আগামি ২৫ নভেম্বর […]

তুচ্ছ কারণে জোড়া খুন, যা বলল পুলিশ

রাজধানীর ধানমন্ডিতে দুই নারীকে খুনের ঘটনায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে সন্দেহভাজন গৃহকর্মীকে। সুরভী আক্তার নাহিদা নামের ওই গৃহকর্মী প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন বলে দাবি করেছে পুলিশ। বাসা থেকে বের হতে বাধা দেয়ায় গৃহকর্মী দুজনকে হত্যা করেন বলে দাবি পুলিশের। তবে সামান্য বিষয়ে দুজনকে হত্যার বিষয়টি অস্বাভাবিক দেখছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তারা বিষয়টি আরও খতিয়ে দেখা […]