রাত জেগে ইবাদত করলেও ইবাদত কবুল হবে না তাদের

একদিন এক লোক রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের কাছে এসে বললেন, ‘হে আল্লাহর রাসুল! আমি দান-সাদকা করি। এর মাধ্যমে আল্লাহর সন্তুষ্টি কামনা করি এবং আমার সম্পর্কে ভালো কিছু বলুক, তা আমি ভালোবাসি।’ তখন আয়াত নাজিল করে আল্লাহ তাআলা জানিয়ে দেন-

‘যে ব্যক্তি তার রবের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে চায়, সে যেন নেক আমল করে এবং তার রবের ইবাদতে কাউকে শরিক না করে।’ (সুরা কাহফ : আয়াত ১১০)

উল্লেখিত কুরআন ও হাদিসের আলোকে প্রমাণিত একমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টি ব্যতিত অন্য কোনো উদ্দেশ্যে করা ইবাদত আল্লাহর কাছে গ্রহণযোগ্য হবে না। আল্লাহ ছাড়া ভিন্ন উদ্দেশ্যে আমল করলে সে আমলে নেকিও পাওয়া যাবে না।

যারা আল্লাহর উদ্দেশ্য কিংবা সন্তুষ্টি ছাড়া অন্য কোনো উদ্দেশ্যে আমল করবে, তারা নিঃসন্দেহে জাহান্নামী। আল্লাহ তাআলা বলেন-
‘আমলের বিনিময়ে যারা দুনিয়ার চাইবে, আমি দুনিয়াতেই তার জন্য যা ইচ্ছা দান করব। তারপর পরকালে তাদের জন্য জাহান্নাম নির্ধারণ করবো। তাতে তারা নিন্দিত ও বিতাড়িত অবস্থায় প্রবেশ করবে। পক্ষান্তরে যারা (আমলের বিনিময়ে) পরকাল চাইবে এবং মুমিন অবস্থায় তার (পরকালের) জন্য যথারীতি প্রচেষ্টা চালাবে, তাদের প্রচেষ্টা আল্লাহর কাছে গ্রহণযোগ্য ও সমাদৃত হবে।’ (সুরা বনি ইসরাইল : আয়াত ১৮-১৯)

এ জন্যই কুরআন হাদিসে বারবার সতর্কবাণী নাজিল করা হয়েছে। বলা হয়েছে, আল্লাহর জন্য ছাড়া কোনো আমলের ভালো ফলাফল মিলবে না। হাদিসে এসেছে-

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘এমন বহু রোজাদার রয়েছে, ক্ষুধা ও পিপাসায় কষ্ট ছাড়া রোজার দ্বারা তাদের আর কিছুই লাভ হয় না। আবার অনেক রাত জেগে ইবাদতকারী রয়েছে, যারা তাদের ইবাদতের বিনিময় রাত জেগে থাকা ও কষ্ট ছাড়া আর কিছুই পাবে না।’ (ইবনে মাজাহ, মুসনাদে আহমদ)

আল্লাহ তাআলা বান্দার সব আমলের ব্যাপারে খোঁজ নেবেন এবং সে আলোকেই ফয়সালা গ্রহণ করবেন। যেমনটি তিনি কুরআনে পাকে ঘোষণা করেছেন-

‘আমি (আল্লাহ) ছাড়া অন্যের সন্তুষ্টির জন্য তারা যেসব আমল (ইবাদত) করেছে, আমি সেসবের খোঁজ নেব, এরপর সে আমলকে উৎক্ষিপ্ত ধূলিকণায় পরিণত করবো।’ (সুরা ফুরকান : আয়াত ২৩)

সুতরাং আমল করতে হবে শুধু আল্লাহর জন্য। মুখে মুখে আল্লাহর কথা বলে অন্তরে অন্যের জন্য আমল করলে তা ধূলিকণায় পরিণত হবে। এর পরিণতি হবে ভয়াবহ। তার জন্য প্রস্তুত থাকবে চিরস্থায়ী জাহান্নাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Releated

আজ পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.)

আজ ১০ নভেম্বর রবিবার পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.)। মানবজাতির শিরোমণি মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) এর জন্ম ও ওফাত দিন। প্রায় ১৪০০ বছর আগে ৫৭০ খ্রিস্টাব্দের ১২ রবিউল আউয়াল ইসলামের শেষ নবী (সা.) আরবের মরু প্রান্তরে মা আমিনার কোল আলো করে জন্মগ্রহণ করেন। আবার ৬৩২ খ্রিস্টাব্দের এই দিনে মাত্র ৬৩ বছর বয়সে তিনি ইন্তেকাল করেন। সারা […]

যে আমলে ধন-সম্পদে বরকত পাবে মুমিনগণ

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পাঁচটি জিনিসের আগে পাঁচটি জিনিসকে মর্যাদা দেয়ার কথা বলেছেন। এরমধ্যে একটি হলো অভাবের আগে স্বচ্ছলতাকে মর্যাদা দেয়া। যাদের ধন-সম্পদ আছে তার যথাযথ ব্যবহার করা। অন্যায় পথে তা ব্যয় না করা। নেসাব পরিমাণ সম্পদ থাকলে তা পবিত্রতা ও বরকতের জন্য জাকাত দেয়াসহ গরিব-অসহায়দের মাঝে দান-সাদকা করা। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম […]