দেরি করে বাড়ি ফেরায় স্বামীকে কুপিয়ে জখম করলেন স্ত্রী

শুধুমাত্র রাতে দেরি করে বাড়ি ফেরায় স্বামীকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে এক গৃহবধূর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলায়। সোমবার (২১ অক্টোবর) দুপুরে কাজল বেগম (৩০) নামে ওই নারীর বিরুদ্ধে থানায় হত্যাচেষ্টা মামলা করেন স্বামী সালাউদ্দিন (৪২)।

জানা যায়, ১৫-১৬ বছর আগে উপজেলার পশ্চিম চন্ডিপুর গ্রামের মৃত আবদুল খালেকের ছেলে রাজমিস্ত্রি সালাউদ্দিনের সঙ্গে মিরসরাই উপজেলার বাইল্যান্দি গ্রামের নুর আহমেদের মেয়ে কাজলের বিয়ে হয়। তাদের ঘরে এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

গত ১১ অক্টোবর রাত ৯টার দিকে ছালাউদ্দিন নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র নিয়ে বাড়িতে ঢুকে স্ত্রীকে ঘরের দরজা খুলতে বলেন। সে সময় তার মেয়ে দরজা খুলে দেয়। ঘরে ঢোকার পর দেরি করে বাড়ি ফেরা নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া শুরু হয়।

এরই এক পর্যায়ে কাজল বটি দিয়ে ছালাউদ্দিনকে মুখে ও ঘাড়ে এলোপাথাড়ি কোপাতে শুরু করেন। এ সময় ধস্তাধস্তিতে ছালাউদ্দিনের বেশ কয়েকটি দাঁতও ভেঙে যায়।

পরে ছালাউদ্দিনের চিৎকারে বাড়ির অন্য লোকেরা এগিয়ে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখান থেকে চিকিৎসক তাকে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে পাঠান। পরবর্তীতে অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। ছালাউদ্দিনের বর্তমান অবস্থা খুব একটা ভালো নয় বলে জানান তার ভাই আনোয়ার হোসেন।

দাগনভূঞা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসলাম সিকদার ঘটনার ব্যাপারে নিশ্চিত করে বলেন, মামলা দায়ের হয়েছে। পুলিশ এখন ওই গৃহবধূকে গ্রেফতারের চেষ্টা করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Releated

অস্ত্রের মুখে ‘কুমারিত্ব’ হারিয়ে আদালতের দ্বারস্থ দুই মুসলিম তরুণী

নাইজেরিয়ার লাগোস স্টেট ইউনিভার্সিটির (এলএএসইউ) কয়েকজন ছাত্রের বিরুদ্ধে একই প্রতিষ্ঠানের দুজন মুসলিম নারী শিক্ষার্থীকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গত সোমবার আদালতে নিজেদের জবানবন্দিতে ভুক্তভোগীরা জানিয়েছেন, ধর্ষণের ফলে তারা কুমারিত্ব হারিয়েছেন। এর বিচার চান তারা। ডেইলি পোস্টের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হিজাব পরিহিত ওই দুই নারী শিক্ষার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররাই অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ধর্ষণ করেছেন। আগামি ২৫ নভেম্বর […]

তুচ্ছ কারণে জোড়া খুন, যা বলল পুলিশ

রাজধানীর ধানমন্ডিতে দুই নারীকে খুনের ঘটনায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে সন্দেহভাজন গৃহকর্মীকে। সুরভী আক্তার নাহিদা নামের ওই গৃহকর্মী প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন বলে দাবি করেছে পুলিশ। বাসা থেকে বের হতে বাধা দেয়ায় গৃহকর্মী দুজনকে হত্যা করেন বলে দাবি পুলিশের। তবে সামান্য বিষয়ে দুজনকে হত্যার বিষয়টি অস্বাভাবিক দেখছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তারা বিষয়টি আরও খতিয়ে দেখা […]